এবার দেয়ালে দেয়ালে নয়ন বন্ডের ০০৭

703

আলোকিত সকাল ডেস্ক

বরগুনায় দিন-দুপুরে স্ত্রীর সামনে স্বামী রিফাত শরীফকে নৃশংসভাবে কুপিয়ে হত্যার ঘটনার পরিকল্পনা করা হয় হত্যাকাণ্ডের আগের দিন ‘০০৭’ নামের একটি ফেসবুক গ্রুপের মাধ্যমে।

ওই গ্রুপে কে কখন কি অস্ত্র নিয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হবে তার নির্দেশনা দেয়া হয়। নির্দেশনা অনুযায়ী গত বুধবার সকালে রিফাতকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়।

ওই ফেসবুক গ্রুপের কথোপকথনের স্ক্রিনশটে দেখা যায়, ঘাতক রিফাত ফরাজী ঘটনার আগের দিন রাত ৮টার দিকে ম্যাসেঞ্জার ‘০০৭’ গ্রুপের সদস্যদের পরদিন সকাল ৯টায় সরকারি কলেজের সামনে থাকার নির্দেশ দেয়।

বিখ্যাত গোয়েন্দা চরিত্র জেমস বন্ডের নামের সঙ্গে মিলিয়ে এ গ্রুপের নাম রাখা হয় ‘০০৭।’ এ ম্যাসেঞ্জার গ্রুপটির নেতৃত্বে ছিলেন রিফাত শরীফ হত্যাকাণ্ডের অন্যতম প্রধান আসামি নয়ন বন্ড।

বন্ড অংশটি নয়ন নিজেই নিজের নামের সঙ্গে জুড়ে দেন। বরগুনার এ হত্যাকাণ্ডের পর ‘০০৭’ নামের ফেসবুক ম্যাসেঞ্জার গ্রুপের নাম সবার সামনে আসে। এরপর থেকে দেশব্যাপী আলোচনায় চলে আসে ‘০০৭’ নামের এ ফেসবুক ম্যাসেঞ্জার গ্রুপের নাম।

এরই মধ্যে হঠাৎ করে দুদিন ধরে কুষ্টিয়া শহরের বিভিন্ন দেয়ালে দেয়ালে ইংরেজিতে ‘০০৭’ লেখা দেখা যাচ্ছে। কোনো কোনো দেয়ালে মানুষের হাসির দুটি ইমো দিয়ে শেষে ইংরেজিতে ‘৭’ লেখা হয়েছে।

শহরের কমলাপুর এলাকাসহ বিশেষ করে পুলিশ লাইন্সের আশপাশের দেয়ালেও ‘০০৭’ লেখা দেখা যায়। এমনকি পুলিশ লাইন্সের দেয়ালেও ‘০০৭’ লেখা রয়েছে।

স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, দুদিন ধরে হঠাৎ করে বিভিন্ন দেয়ালে ‘০০৭’ লেখা দেখা যাচ্ছে। তবে কে বা কারা কি উদ্দেশ্যে দেয়ালগুলোতে ‘০০৭’ লিখেছে এ ব্যাপারে কেউ কোনো সঠিক ধারণা দিতে পারছে না।

তবে অনেকেই ধারণা করছেন, বরগুনার আলোচিত হত্যাকাণ্ডের ঘটনার পর ‘০০৭’ নামের ফেসবুক ম্যাসেঞ্জার গ্রুপের নাম ছড়িয়ে পড়ায় স্কুল-কলেজ কিংবা স্থানীয় কিছু বখাটে দেয়ালগুলোতে ‘০০৭’ লিখেছে।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে কুষ্টিয়ার পুলিশ সুপার এসএম তানভীর আরাফাত বলেন, কে বা কারা এসব লিখেছে এ ব্যাপারে আমাদের কাছে কোনো তথ্য নেই। বিষয়টি আমাদের নজরে আসেনি। বিষয়টি তদন্ত করে দেখব।

প্রসঙ্গত, দেশব্যাপী আলোচিত বরগুনার রিফাত শরীফ হত্যাকাণ্ডে দায়ের করা মামলার প্রধান অভিযুক্ত নয়ন বন্ড পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে নিহত হয়েছেন। মঙ্গলবার ভোররাতে বরগুনার পুরাকাটা এলাকায় বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে। নয়ন বন্ডের নিহত হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বরগুনার পুলিশ সুপার মারুফ হোসেন।

আস/এসআইসু

Facebook Comments