কৃষকরা নায্যমূল্য পাবেন না, এমন বাংলাদেশ চাইনি: কৃষিমন্ত্রী

198

আলোকিত সকাল ডেস্ক

কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক বলেছেন, কৃষক ধান-আলুর আবাদ করে লাভ করতে পারবেন না, নায্যমূল্য পাবেন না, তার সন্তানকে লেখাপড়া করাতে পারবেন না- এমন বাংলাদেশ তো আমরা চাইনি। এ জন্য বাংলাদেশকে আমরা স্বাধীন করিনি।

শনিবার (৬ জুলাই) রাজশাহী শিল্পকলা একাডেমিতে অনুষ্ঠিত ‘দ্বিতীয় বারিন্দ এগ্রো-ইকো ইনোভেশন রিসার্চ প্লাটফর্ম’ শীর্ষক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এসব কথা বলেন। বারিন্দ মাল্টিপারপাস ডেভেলপমেন্ট অথরিটি (বিএমডিএ) রাজশাহীর উদ্যোগে এই সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

কৃষিমন্ত্রী বলেন, যে দেশে কৃষকরা ন্যায্য মূল পাবে না, সেটিকে আমরা সোনার বাংলা বলি না। তাই কৃষককে ধানের নায্যমূল্য দেব। কৃষকরা ন্যায্য দাম না পাওয়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অনেক উদ্বিগ্ন। বিষয়টি নিয়ে সরকার প্রতিটি সেক্টরে কাজ করে যাচ্ছে।

তিনি জানান, সরকার কৃষিকে বাণিজ্য ও যান্ত্রিকীকরণ করার জন্য প্রতিটি সেক্টরে কাজ করছে। এটি শতভাগ বাস্তবায়িত হলে কৃষকরা তাদের চাষাবাদকৃত ফসলের ন্যায্য মূল পাবেন।

তিনি বলেন, বাংলাদেশের ৬০ থেকে ৬৫ শতাংশ মানুষ গ্রামে বসবাস করে। তারা কোনো না কোনোভাবে কৃষির সঙ্গে সম্পৃক্ত। বর্তমানে উপজেলা পর্যায়ে শহরের সকল আধুনিক সুযোগ-সুবিধা পৌঁছে গেছে। কিন্তু শিক্ষাক্ষেত্রে উপজেলাগুলো শহর থেকে একটু পিছিয়ে রয়েছে। পর্যায়ক্রমে উপজেলা পর্যায়ে উন্নত শিক্ষা বাস্তবায়ন করা হবে।

সাবেক সাংসদ ও বিএমডিএ’র চেয়ারম্যান ড. আকরাম হোসেন চৌধুরীর সভাপতিত্বে এ সময় উপস্থিত ছিলেন রাজশাহী-১ আসনের সংসদ সদস্য ওমর ফারুক চৌধুরী, রাজশাহী-৫ আসনের সংসদ সদস্য মনসুর রহমান, সংরক্ষিত মহিলা আসনের সাংসদ আদিবা আনজুম মিতা, রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনার নুর-উর রহমান,বিএমডিএ’র সহকারী পরিচালক কৃষিবিদ আব্দুর রশীদ, জেলা প্রশাসক হামিদুল হক প্রমুখ।

আস/এসআইসু

Facebook Comments