কে পাচ্ছে নিউজিল্যান্ডকে, অস্ট্রেলিয়া নাকি ভারত?

194

আলোকিত সকাল ডেস্ক

ক্রিকেটের সেরা চার দলই বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে খেলবে এ নিয়ে কারো কোনো দ্বিমত নেই। যদিও পাকিস্তান ও বাংলাদেশও সেমিফাইনাল খেলার অন্যতম দাবীদার ছিলো। এ দুই দলের সমর্থকরা আক্ষেপ করে বলতেও পারে নিউজিল্যান্ডের থেকেও যোগ্য দল ছিলো বাংলাদেশ ও পাকিস্তান। কিন্তু এসব বিতর্ক বাদ দিলে বাস্তবতা হলো যোগ্য দল হিসেবেই সেমিতে চার দল। তবে যোগ্য হলেও ভাগ্যেরও কিছু সাহায্য পেয়েছে কিউইরা। আর সে হিসেবে সেমির চার দলের মধ্যে সবচেয়ে দূর্বল দল নিউজিল্যান্ড।

আজ শেষ হচ্ছে বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্বের লড়াই। শেষ চারে কে যাচ্ছে, সেটা প্রায় নিশ্চিত হয়ে গেছে ইংল্যান্ড-নিউজিল্যান্ড ম্যাচেই। সেই হিসাবে শুক্রবার (৫ জুলাই) বাংলাদেশ-পাকিস্তান ম্যাচটি যেমন ছিল আনুষ্ঠানিকতার, ঠিক তেমনি অস্ট্রেলিয়া-দক্ষিণ আফ্রিকা ও ভারত-শ্রীলঙ্কা ম্যাচও একরকম আনুষ্ঠানিকতারই। অস্ট্রেলিয়া ও ভারত—দুই দলই সমান ৮ ম্যাচ খেলে যথাক্রমে ১৪ ও ১৩ পয়েন্ট নিয়ে প্রথম ও দ্বিতীয় স্থানে আছে। তবে ভারত ও অস্ট্রেলিয়ার দুই দলই চাইবে পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে থেকে সেমিফাইনাল খেলতে।

পয়েন্ট তালিকায় শীর্ষে থাকা দল চতুর্থ দল হিসেবে শেষ চারে জায়গা করে নেওয়া নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে খেলবে। ১ নম্বর ও ৪ নম্বর দলের সেমিফাইনালটা হবে ওল্ড ট্রাফোর্ডে। আজ অস্ট্রেলিয়াও সেই ওল্ড ট্রাফোর্ডেই দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে লিগ পর্বের শেষ ম্যাচটা খেলবে। স্বভাবতই অস্ট্রেলিয়া চাইবে প্রোটিয়াদের হারিয়ে একই ভেন্যু ওল্ড ট্রাফোর্ডেই থেকে যেতে। সর্বশেষ ম্যাচে যেহেতু নিউজিল্যান্ডকে সহজেই হারিয়েছে অ্যারন ফিঞ্চের দল, ফাইনালের আগে সেই নড়বড়ে নিউজিল্যান্ডকেই তো চাইবেন অস্ট্রেলিয়ানরা।

শীর্ষে থেকে প্রথম পর্ব শেষ করতে চাইবে ভারতও। কারণ, ইংল্যান্ডের চেয়ে আপাতত নিউজিল্যান্ডকেই প্রতিপক্ষ হিসেবে সহজ মনে হচ্ছে। তবে শীর্ষে উঠতে আজ বিরাট কোহলিদের শ্রীলঙ্কাকে হারালেই হবে না, আশা করতে হবে যাতে দক্ষিণ আফ্রিকা হারিয়ে দেয় অস্ট্রেলিয়াকে।

পরপর দুই ম্যাচ জিতে পয়েন্ট তালিকার তৃতীয় স্থান পাকা করা ইংল্যান্ডের বিপক্ষে খেলতে চাইবে না ভারত। এজবাস্টনে সবশেষ দেখায় ভারতকে ৩১ রানে হারিয়েছে স্বাগতিক ইংল্যান্ড। শ্রীলঙ্কা ও অস্ট্রেলিয়ার কাছে হারের পর ভারত ও নিউজিল্যান্ডকে দাপটের সঙ্গে হারিয়েছে ইংল্যান্ড। উড়ন্ত ফর্মে থাকা ইংল্যান্ড তাদের প্রিয় ভেন্যু এজবাস্টনে সেমিফাইনাল খেলবে। আত্মবিশ্বাসের চূড়ায় থাকা ইংল্যান্ড এ মুহূর্তে ভয়ংকর দল হতে পারে। তাই সেমিফাইনালে ভারত ও অস্ট্রেলিয়া দুই দলের চাওয়াই থাকবে ইংল্যান্ডকে এড়ানো। ওদিকে প্রথম পর্বে নিজেদের শেষ তিন ম্যাচের তিনটিতেই হেরেছে নিউজিল্যান্ড। আত্মবিশ্বাসে কিছুটা হলেও ধাক্কা লেগেছে তাদের। নিউজিল্যান্ড তো শেষ চারের প্রথম পছন্দের প্রতিপক্ষ হবেই।

ইংল্যান্ডের সাবেক অধিনায়ক মাইকেল ভনও বিবিসি রেডিওতে বলেছেন, ‘আপনি এ মুহূর্তে সেমিফাইনালে নিউজিল্যান্ডকেই প্রতিপক্ষ হিসেবে চাইবেন। এ জন্যই অস্ট্রেলিয়া পয়েন্ট তালিকায় নিচে নেমে আসতে চাইবে না। ওরা দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারাতে চাইবে। তাহলেই একই মাঠে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে খেলার সুবিধাটুকু পাওয়া যাবে। দল হিসেবে আপনি ম্যানচেস্টারেই তাঁবু গেড়ে রাখতে চাইবেন। তাতে ৪-৫ দিনের ব্যবধানে একই উইকেটে খেলতে পারবেন আপনি। দক্ষিণ আফ্রিকা এবারের বিশ্বকাপে ভালো ক্রিকেট খেলছে না। তাই আমার মনে হয়, অস্ট্রেলিয়া দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারাবে এবং সেমিফাইনালে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে খেলবে।’

মাইকেল ভন শুধু এটুক বলেই থামলেন না। ভবিষ্যদ্বাণীও করে রাখলেন, ১১ জুলাই অন্য সেমিফাইনালে ভারতকে হারিয়ে ফাইনাল খেলবে ইংল্যান্ড এবং ১৪ জুলাই বিশ্বকাপ ফাইনাল খেলবে অস্ট্রেলিয়া-ইংল্যান্ড!

আস/এসআইসু

Facebook Comments