জঙ্গিরা এখন ইন্টারনেটে বেশি সক্রিয়: আইজিপি

198

আলোকিত সকাল ডেস্ক

জঙ্গিরা এখন ইন্টারনেটে বেশি সক্রিয় বলে মন্তব্য করেছেন পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী।

তিনি বলেছেন, তারা ইন্টারনেটসহ বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে যোগাযোগ বৃদ্ধি করেছে। তারা সদস্য সংগ্রহসহ বিভিন্ন কার্যক্রম চালাচ্ছে ইন্টারনেটে। তবে আমাদের গোয়েন্দা সংস্থাগুলো তাদের নজরদারি করছে।

সোমবার (১ জুলাই) সকালে রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনারের কার্যালয়ে সিসিটিভি ব্যবস্থা চালু, ওয়েবসাইটের উদ্বোধন ও মেট্রোপলিটন পুলিশের কর্মবণ্টন বইয়ের মোড়ক উন্মোচন শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে এসব কথা বলেন আইজিপি।

মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী বলেন, ইতোমধ্যে আমরা অনেক জঙ্গিকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়েছি। এটা গোয়েন্দাদের নিয়মিত নজরদারির ফলাফল। আমরা জঙ্গিদের যেকোনো অপতৎপরতা নস্যাৎ করে দেব। আইএসের মতাদর্শ বাস্তবায়নে বাংলাদেশ থেকে অনেকে সিরিয়া গেলেও একজনও দেশে ফিরে আসেনি।

তিনি বলেন, আমাদের দেশে তৈরি হওয়া জেএমবির সদস্যরা আইএসের অনুসারী হতে পারে। আমরা তাদের অনুসরণ করছি।

বরগুনার রিফাত হত্যা প্রসঙ্গে আইজিপি বলেন, একটা ছেলেকে দিনদুপুরে কুপিয়ে হত্যা করা হলো। সবাই দেখল, কিন্তু কেউ তাকে বাঁচাতে এগিয়ে এলো না। এখন সমাজে যে চিত্র দেখা যাচ্ছে তা হচ্ছে অবক্ষয়ের চিত্র।

তিনি বলেন, এখন যেসব ছেলে পাড়া-মহল্লায় বড় হচ্ছে তারা মুরব্বিদের এমনকি মা-বাবাকেও মানে না। তারা এটাকে অ্যাডভেঞ্চারের জায়গা মনে করছে। ছোটখাটো গ্রুপ তৈরি করছে তারা। মাস্তান গ্রুপ গড়ে তুলছে তারা। এসব গ্রুপের সদস্যদের বাবারা নিজেদের গর্বিত মনে করছেন। কারণ তাদের সালাম দিচ্ছে এলাকার লোকজন। কিন্তু এটি শ্রদ্ধার জন্য নয়, ভয়ে দিচ্ছে সালাম দিচ্ছে, সেটি বাবারা বোঝেন না। এটি সামাজিক অবক্ষয়। এই অবক্ষয়কে সামাজিক সমস্যা হিসেবে চিহ্নিত করে মোকাবিলা করতে হবে।

সমাজ বিজ্ঞানীদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে জাবেদ পাটোয়ারী বলেন, কীভাবে সামাজিক এই অবক্ষয় দূর করা যায় সেজন্য চিন্তা-ভাবনা করে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে।

এ সময় রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার আব্দুল আলীম মাহমুদ, রংপুর রেঞ্জের ডিআইজি দেবদাস ভট্টাচার্যসহ ঊর্ধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

আস/এসআইসু

Facebook Comments