ধর্ষণের পর কিশোরীকে রাস্তায় ফেলে গেল দুর্বৃত্তরা

188

আলোকিত সকাল ডেস্ক

কর্ণফুলী থানাধীন কোরিয়ান ইপিজেডে কর্ণফুলী সু ফ্যাক্টরিতে কর্মরত এক কিশোরী ধর্ষণের শিকার হয়েছে। কাজ শেষে বাড়ি ফেরার পথে ধর্ষণকারীরা ওই কিশোরীকে রাস্তায় ফেলে যায়। বুধবার (৩ জুলাই) রাত আটটার দিকে আনোয়ারা থানাধীন চৌমুহনীর কালার মার দিঘী এলাকা থেকে ওই কিশোরীকে উদ্ধার করে স্থানীয় লোকজন। ওই কিশোরী থেকে স্বজনদের ফোন নাম্বার সংগ্রহ করে বিষয়টি তার পরিবারকে অবহিত করে তারা। পরবর্তীতে রাত ১২টার দিকে ধর্ষণের শিকার কিশোরীকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করায় স্বজনরা। ওই কিশোরীর বাড়ি চন্দনাইশ উপজেলায়।

ওই কিশোরীর স্বজনরা জানায়, অজ্ঞাত ব্যক্তির একটি ফোনকল আসার পর আমরা ঘটনাস্থালে যাই। এরপর পুলিশের সহযোগিতা নিয়ে রাত ১২টায় তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসি।

হাসপাতালে উপস্থিত স্বজনরা জানায়, কাজ শেষে বাড়ি ফেরার পথে ৪/৫ জন যুবক তাকে তুলে নিয়ে অজ্ঞাত স্থানে ধর্ষণ করে রাস্তার পার্শ্বে ফেলে চলে যায়। আর্থিকভাবে অসচ্ছল হওয়ায় তার চিকিৎসা চালিয়ে নেওয়া নিয়ে দুশ্চিন্তায় আছেন তারা।

আনোয়ারা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) দুলাল মাহমুদ জানান, ধর্ষণের শিকার ওই কিশোরীকে উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এই বিষয়ে কিশোরী সুস্থ হলে মামলা দায়ের করা হবে।

চমেক হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির এএসআই আলাউদ্দিন তালুকদার ধর্ষণের শিকার ওই কিশোরী (১৫) চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

আস/এসআইসু

Facebook Comments