নাটকে নেইমারকেও ছাড়িয়ে যাবেন পগবা?

187

আলোকিত সকাল ডেস্ক

দলবদলের বাজারে সব নাটক যেন নেইমারকে ঘিরেই বরাদ্দ ছিল এত দিন। রিয়াল মাদ্রিদের নাম আর উচ্চারিত হয় না। তবে একবার পিএসজি তো আরেকবার বার্সেলোনা, নেইমার নাটকের অন্ত নেই। ইদানীং পল পগবাও পিছিয়ে নেই খুব একটা। তাঁকে ঘিরে নাটকও যে কম হচ্ছে না!

দুর্দান্ত প্রতিভার প্রতিশ্রুতি দেখিয়ে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে যোগ দিয়েছিলেন। অনেক নাটক করে স্যার অ্যালেক্স ফার্গুসনের রক্তচক্ষু উপেক্ষা করে চলে গিয়েছিলেন জুভেন্টাসে। চার মৌসুম জুভেন্টাসে কাটানোর পর আবার দলবদলের ইচ্ছা হয়েছিল তাঁর। রিয়াল মাদ্রিদের সঙ্গে বেশ অনেক দিন নাম জড়ানো হলেও অনেক ঘটা করে ২০১৬ সালে দলবদলের বিশ্ব রেকর্ড গড়ে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে এসেছিলেন পগবা।

হোসে মরিনহোর আমলে নিজেকে সেভাবে মেলে ধরতে পারেননি, তবে ওলে গুনার সুলশার কোচের দায়িত্ব নেওয়ার পরই দেখা গেছে সেরা ফর্মের পগবাকে। গত মৌসুমে দলকে কিছু জেতাতে না পারলেও ব্যক্তিগত ফর্ম বিবেচনায় বেশ ভালোই খেলেছিলেন ফ্রেঞ্চ তারকা। কিন্তু মৌসুম শেষ হওয়ার পর থেকেই গুঞ্জন, ইউনাইটেডে আর থাকতে চাইছেন না পগবা।

এরপরই বিভিন্ন ক্লাবের সঙ্গে পগবাকে জড়িয়ে গুঞ্জন শুরু হয়ে যায়। সবার আগে শোনা গিয়েছিল রিয়াল মাদ্রিদের কথা। বিশ্বকাপজয়ী ফ্রেঞ্চ মিডফিল্ডারের প্রতি নতুন গ্যালাকটিকো গড়ার মিশনে থাকা ফ্লোরেন্তিনো পেরেজের আগ্রহের কথা অজানা কিছু নয়। পগবার স্বদেশি জিনেদিন জিদান কোচ হয়ে আসার পর পগবার রিয়ালে যাওয়ার গুঞ্জনের পালে হাওয়া লেগেছিল জোরেশোরেই।

তবে এখন পগবার সঙ্গে সবচেয়ে বেশি জড়িয়ে গেছে ইতালিয়ান চ্যাম্পিয়ন জুভেন্টাসের নাম। যে জুভেন্টাস থেকে ইউনাইটেডে এসেছিলেন, সেই জুভেন্টাসেই আবার ফিরতে চাইছেন তিনি, দলবদলের বাজারে এমন গুঞ্জন এখন বেশ শক্তিশালী। জুভেন্টাসে থাকতেই পগবার সেরাটা দেখা গিয়েছিল, ক্লাবটির হয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনালও খেলেছিলেন। এ ছাড়া ডাচ ডিফেন্ডার ম্যাটাইস ডি লিটের এজেন্টও মিনো রাইওলা। জুভেন্টাসের সঙ্গে ডি লিটের চুক্তি প্রায় পাকাপাকি হয়ে গেছে। পগবার জুভেন্টাস যাত্রার সম্ভাবনা তাই একেবারে উড়িয়ে দেওয়ারও উপায় নেই।

সব গুঞ্জন শেষ করে দিয়ে গত মাসে পগবা নিজেই জানিয়েছিলেন, ইউনাইটেডে আর থাকতে চান না। নতুন চ্যালেঞ্জ নেওয়ার জন্যই ইউনাইটেড ছাড়তে চান, এমনটাও জানিয়েছিলেন। কিন্তু তাঁর এমন মন্তব্য ভালোভাবে নেয়নি ইউনাইটেড সমর্থকেরা। পগবা ইউনাইটেডকে অসম্মান করেছেন, এমনটাই দাবি করেছিলেন ইংল্যান্ডের সবচেয়ে সফল ক্লাবটির ভক্ত-সমর্থকেরা।

এমন বিতর্কের মধ্যে এবার মুখ খুলেছেন পগবার এজেন্ট মিনো রাইওলা। নিজের ইচ্ছার কথা জানিয়ে কোনো ভুল করেননি পগবা, এমনটাই দাবি রাইওলার। টকস্পোর্টকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে রাইওলা বলেছেন, পগবার ক্লাব ছাড়ার ইচ্ছার কথা ইউনাইটেড অনেক আগে থেকেই জানে, ‘পগবা কোনো ভুল করেনি। সে তাঁর বর্তমান ক্লাবের প্রতি সম্মান এবং পেশাদারি বজায় রেখেই কথা বলেছে। ক্লাব তাঁর ইচ্ছার কথা অনেক আগে থেকেই জানে। লোকেরা সঠিক তথ্য না জেনে সব সময় তাঁর সমালোচনাতেই ব্যস্ত থাকে, এটা ঠিক নয়। তাঁর ক্লাবও এ ব্যাপারে কোনো অবস্থান নিচ্ছে না, এটিও দুঃখজনক।’

ইউনাইটেড থেকে তাঁর মন উঠে গেছে, এটি যেন সবভাবেই বুঝিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করছেন পগবা। প্রাক-মৌসুম সফরে অস্ট্রেলিয়ায় রওনা হওয়ার আগে তাঁর সতীর্থরা যেখানে ইউনাইটেডের অনুশীলন মাঠ ক্যারিংটনে অনুশীলনে ব্যস্ত, পগবা সেখানে নিউইয়র্কের সেন্ট্রাল পার্কে একা একা অনুশীলন করেছেন!

পগবা চাইছেন ইউনাইটেড ছাড়তে, আর ইউনাইটেড চাইছে যেকোনো মূল্যে তাঁকে ধরে রাখতে। দেখা যাক এ নাটকের শেষ কোথায় হয়!

আস/এসআইসু

Facebook Comments