নয়নের মামা বললেন ওর যা বিচার আল্লাহ করবে

295

আলোকিত সকাল ডেস্ক

বরগুনায় পুলিশের কথিত বন্দুকযুদ্ধে নয়ন বন্ড নিহত হওয়ায় সবার মধ্যে স্বস্তি নেমে এসেছে। এই খুশিতে অনেকে মিষ্টি বিতরণ করেছেন। এমনকি তাকে নিজের গ্রাম পটুয়াখালীর দশমিনায় দাফনেও আপত্তি জানায় স্থানীয়রা। নানা বাড়ি বরগুনার লোকজনও নয়নের দাফনে বাধা হয়ে দাঁড়ায়।

অবশেষে মঙ্গলবার বিকালে বরগুনার ফুলঝুড়ি ইউনিয়নের বুড়িরখাল গ্রামে নানা জয়নাল মৃধার বাড়িতে নয়নকে দাফন করা হয়।

এসময় নয়নের মামা মিজানুর রহমান ভাগিনার অপকর্মের কথা স্বীকার করে বলেন, ‘আমরা শুনেছি এলাকায় ওর (নয়ন) লাশ দাফন করতে দেবে না। তাই কোনো রকমের ঝামেলায় না জড়িয়ে সরাসরি নয়নের নানাবাড়ি মানে আমার বাড়িতে নিয়ে এসেছি।’

নয়নের মামা বলেন, ‘ও যে কাজ করেছে সেটি নিঃসন্দেহে একটি জঘন্য কাজ। যেভাবেই হোক সে মারা গেছে; আমরা ওর লাশ দাফন দিয়েছি। এখন আল্লাহ ওর যা বিচার তা করবে।’

এর আগে বিকাল তিনটার দিকে পুলিশের কাছ থেকে লাশ বুঝে নেন নয়নের মামা মিজানুর রহমান।

গত বুধবার বরগুনা সরকারি কলেজের সামনে স্ত্রীর প্রকাশ্যে কুপিয়ে হত্যা করা হয় রিফাত শরীফ নামের এক যুবককে। এই হত্যার প্রধান আসামি একাধিক মামলার আসামি নয়ন বন্ড। গতরাতে পুলিশের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে নিহত হন নয়ন।

আস/এসআইসু

Facebook Comments