পাকিস্তানকে ৩১৫ রানে থামাল বাংলাদেশ

185

আলোকিত সকাল ডেস্ক

চলতি বিশ্বকাপে গ্রুপ পর্বে নিজেদের শেষ ম্যাচে বাংলাদেশের সামনে ৩১৬ রানের লক্ষ্য দাঁড় করিয়ে দিয়েছে পাকিস্তান। ইমাম-উল-হকের সেঞ্চুরি, বাবর আজমের ৯৬ ও শেষ দিকে ইমাদ ওয়াসিমের ৪৩ রানের ক্যামিও ইনিংসের উপর ভর করে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৯ উইকেটে ৩১৫ রান স্কোরবোর্ডে জমা করেছে সরফরাজ বাহিনী।

এর আগে শুক্রবার (০৫ জুলাই) লর্ডসে টস জিতে প্রথমে ব্যাটিং করার সিদ্ধান্ত নেন পাকিস্তানের অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদ। ম্যাচটি শুরু হয়েছে বাংলাদেশ সময় বিকেল সাড়ে ৩টায়। সরাসরি সম্প্রচার করছে বিটিভি, গাজী টিভি ও মাছারাঙা চ্যানেল।

টসে জিতে উদ্বোধনী জুটিতে ভালো শুরুর আভাস দিচ্ছিল পাকিস্তান। তবে তা বেশিক্ষণ স্থায়ী হতে দিল না টাইগাররা। দলীয় ২৩ রানে হারায় ১ম উইকেট পাকিস্তান। ইনিংসের ৮ম ওভারে টাইগার অলরাউন্ডার মোহাম্মদ সাইফউদ্দিনের বলে মেহেদী হাসান মিরাজের হাতে ধার পড়ে প্যাভিলিয়নে ফিরেন ওপেনার ফখর জামান। আউট হবার ৩১ বলে ১৩ রান করেন তিনি।

এরপর মাঠে আসেন বাবর আজম। ওপেনার ইমাম-উল-হকের সাথে মিলে গড়েন ১৫৭ রানের জুটি। দলীয় ১৮০ রানে সেই মোহাম্মদ সাইফউদ্দিনের বলে এলবিডব্লিউ’র ফাঁদে পড়েন বাবর। আউট হওয়ার আগে ৯৮ বলে ৯৬ রান করেন তিনি।

দলীয় ২৪৬ রানে কাটার মাস্টার মোস্তাফিজুর রহমানের বলে হিট উইকেট আউট হয়ে সাজঘরে ফিরে গেছেন ইমাম-উল-হক। আউট হবার আগে তিনি করেন ১০০ বলে ১০০ রান। ইমামের পরপরই মেহেদী মিরাজ সাজঘরে ফিরিয়েছেন মোহাম্মদ হাফিজকে (২৭)।

মোস্তাফিজ দ্বিতীয় শিকার বানান হারিস সোহেলকে (৬)। সোহেলকে আউট করেই ওয়ানডে ক্যারিয়ারে দ্রুততম চতুর্থ বোলার হিসেবে ১শ’ উইকেটের মাইলফলক ছুঁয়েছেন কাটার মাস্টার। মোস্তাফিজের এই রেকর্ড গড়তে লেগেছে ৫৪ ম্যাচ। ৪৪ ম্যাচে দ্রুততম ১শ’ উইকেট নেওয়ার রেকর্ডটি অক্ষত রেখেছেন রশিদ খান।

Facebook Comments