বাংলাদেশ-ভারত পরিসংখ্যানে কে এগিয়ে?

223

আলোকিত সকাল ডেস্ক

ইংল্যান্ডে অনুষ্ঠেয় আইসিসি বিশ্বকাপ ২০১৯ আসরের ৪০তম ম্যাচে আগামীকাল মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ ও ভারত। গ্রুপ পর্বে এটি হবে উভয় দলের অস্টম ম্যাচ। বিশ্বকাপে এ দুই দল প্রথম মুখোমুখি হয় ২০০৭ আসরে। প্রথম দেখাতেই শক্তিশালী ভারতকে পরাজিত করে বড় বিস্ময়ের জন্ম দেয় বাংলাদেশ।

এ পরাজয়ের কারণে শেষ পর্যন্ত গ্রুপ পর্ব থেকেই বিদায় নিতে হয়েছিল ভারতকে। এরপর দুই দল পরস্পরের মুখোমুখি হয় ২০১১ ও ২০১৫ বিশ্বকাপে। এ দুই ম্যাচেই অবশ্য বড় জয় পায় ভারত।

এবার বিশ্বকাপে দুই দলের গুরুত্বপূর্ণ পরিস্যংখ্যান:

অতীত ফলাফল:

২০০৭- বাংলাদেশ ৫ উইকেট জয়ী, ম্যাচ সেরা মাশরাফি বিন মর্তুজা।

২০১১-ভারত ৮৭ রানে জয়ী, ম্যাচ সেরা বিরেন্দার শেবাগ।

২০১৫- ভারত ১০৯ রানে জয়ী, ম্যাচ সেরা রোহিত শর্মা।

ব্যাটিং পারফরম্যান্স:

৩৭০/৪ ২০১১ বিশ্বকাপে ভারতের সংগ্রহ। বিশ্বকাপ মঞ্চে ভারত-বাংলাদেশের মধ্যকার ম্যাচে সর্বোচ্চ দলীয় সংগ্রহ।

১৯১ রানে ভারত অলআউট ২০০৭ বিশ্বকাপ। বিশ্বকাপে বাংলাদেশ-ভারতের মধ্যকার ম্যাচে এটিই সর্বনিম্ন দলীয় স্কোর।

১৭৭ বিরেন্দার শেবাগের রান। বিশ্বকাপে বাংলাদেশ-ভারতের মধ্যকার ম্যাচে কোন খেলোয়াড়ের সর্বোচ্চ রান সংখ্যা।

১৭৫ ২০১১ আসরে বিরেন্দার শেবাগের রান সংখ্যা। বিশ্বকাপে বাংলাদেশ-ভারতের মধ্যকার ম্যাচে কোন এক ইনিংসে কোন খেলোয়াড়ের ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ রান।

৩ সেঞ্চুরি: বিশ্বকাপে বাংলাদেশ-ভারতের মধ্যকার ম্যাচে সেঞ্চুরি সংখ্যা। তিনটি সেঞ্চুরি মালিক হলেন বিরেন্দার শেবাগ( ১৭৫, ২০১১ আসর), বিরাট কোহলি (১০০, ২০১১ আসর) এবং রোহিত শর্মা (১৩৭, ২০১৫ আসর)।

৭ হাফ সেঞ্চুরি। বিশ্বকাপে বাংলাদেশ-ভারত ম্যাচে হাফ সেঞ্চুরির সংখ্যা।

বোলিং পারফরম্যান্স:

৬ সর্বোচ্চ উইকেট সংখ্যা। বিশ্বকাপে বাংলাদেশ-ভারতের মধ্যকার ম্যাচে একজন বোলার হিসেবে মুনাফ প্যাটেল সর্বোচ্চ ৬ উইকেট শিকার করেন।

৪/৩৮ সেরা বোরিং ফিগার। বিশ্বকাপে বাংলাদেশ-ভারত ম্যাচে কোন বোলারের সেরা বোলিং ফিগার। ২০০৭ আসরে যে রেকর্ড গড়েন বাংলাদেশের মাশরাফি।

উইকেট কিপিং পারফরম্যান্স:

৮ সর্বোচ্চ ডিসমিজাল। বিশ্বকাপে বাংলাদেশ-ভারত ম্যাচে সর্বোচ্চ এ ডিসমিসালের রেকর্ড রয়েছে মহেন্দ্র সিং ধোনির।

৪ এক ম্যাচে সর্বোচ্চ ডিসমিসাল সংখ্যা। বিশ্বকাপে বাংলাদেশ-ভারত ম্যাচে ২০১৫ আসনে এক ইনিংসে উইকেটরক্ষক হিসেবে সর্বোচ্চ এ ডিসমিসালের রেকর্ড গড়েন ধোনি।

ফিল্ডিং পারফরম্যান্স:

২ ক্যাচ। বিশ্বকাপে বাংরাদেশ-ভারত ম্যাচে টাইগার দলের আব্দুর রাজ্জাক, আফতাব আহমেদ এবং টিম ইন্ডিয়ার রবিচন্দ্রন অশ্বিন ও মোহাম্মদ সামির রয়েছে সর্বোচ্চ দুটি ক্যাচ নেয়ার এ রেকর্ড।

আস/এসআইসু

Facebook Comments