যমুনায় অব্যাহত ভাঙন

325

আলোকিত সকাল ডেস্ক

বর্ষা মৌসুম শুরু হতে না হতেই জামালপুরের দেওয়ানগঞ্জে খোলাবাড়ী ও বরখাল যমুনা নদীর পানি বেড়ে শুরু হয়েছে ভাঙন। অব্যাহত ভাঙনে হুমকীর মুখে পড়েছে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, বাহাদুরাবাদ নৌ থানাসহ গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, ফুঁসে উঠা যমুনার পানির ঢলে গত কয়েকদিনে জেলার দেওয়ানগঞ্জ উপজেলার চিকাজানী ইউনিয়নের খোলাবাড়ী, বরখাল দেলোয়ার স্কুল হতে খোলাবাড়ী উত্তর শেষ সীমানা পর্যন্ত ভাঙনের তান্ডব্য লীলা চলছে। ভাঙন কবলিত এলাকার মানুষ বাড়ি-ঘর সরিয়ে নেওয়াসহ আতঙ্কে জীবন যাপন করছে।

যমুনা ভাঙনের শিকার খোলাবাড়ী এলাকার শাহিদা বেগম, নূরভানু ও আফজাল হোসেন জানান, যমুনা নদী তিন চার ভাঙা দিয়েছে তাদের বাড়ি। গত বছর এক পাড়া ভেঙেছে, এবারো ভাঙছে আমরা যামু কোথাই; তারা আক্ষেপ করে জানান, সরকারতো বহুদিন ধরে কয় পাইলিং হবে কিন্তু হয় না।

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মমতাজ উদ্দিন জানান, ইতোমধ্যে যমুনার অব্যাহত ভাঙনে খোলাবাড়ী চর উচ্চ বিদ্যালয়ের একাংশসহ দুইটি গ্রাম, একটি মসজিদ, প্রাথমিক বিদ্যালয় যমুনা গর্ভে বিলীন হয়েছে। এখন ভাঙন হুমকিতে পড়েছে নবনির্মিতব্য বাহাদুরাবাদ নৌ থানা, ৩৬নং খোলাবাড়ী-২ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ঐতিহ্যবাহী খোলাবাড়ী চর উচ্চ বিদ্যালয়, বরখাল দেলোয়ার হোসেন উচ্চ বিদ্যালয়, খোলাবাড়ী বাজার, মসজিদসহ গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা।

এবিষয়ে দেওয়ানগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সোলায়মান হোসেন যমুনা নদীর করাল গ্রাস থেকে দেওয়ানগঞ্জ উপজেলার চিকাজানী ইউনিয়নের বরখাল ও খোলাবাড়ী এলাকা জরুরী ভাঙন রোধে পানি উন্নয়ন বোর্ডসহ উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নিকট দাবী জানিয়েছেন।

আস/এসআইসু

Facebook Comments