রাজশাহী বোর্ডে পাসের হারে এগিয়ে ছাত্রীরা, জিপিএ-৫ এ ছাত্ররা

255

নিহাল খান, রাজশাহী প্রতিনিধিঃ

রাজশাহী শিক্ষা বোর্ডে এইচএসসিতে পাসের হার ৭৬.৩৮ শতাংশ, জিপিএ পেয়েছে ৬ হাজার ৭২৯ জন।রাজশাহী শিক্ষাবোর্ড থেকে এইচএসসি পরীক্ষায় অংশ নেয় এক লাখ ৪৮ হাজার ৬৭২ জন পরীক্ষার্থী। এদের মধ্যে পাস করেছে এক লাখ ১৩ হাজার ৫৫০ জন।

পাসের হারে ছাত্রদের চেয়ে এগিয়ে রয়েছে ছাত্রীরা। ছাত্রীদের পাসের হার ৮১ দশমিক ২১ শতাংশ, ছাত্রদের পাসের হার ৭২ দশমিক ৩২ শতাংশ।

জিপিএ-৫ প্রাপ্তিতে ছাত্ররা ছাত্রীদের চেয়ে এগিয়ে। ৩ হাজার ৫৪১ জন ছাত্র এবং ৩ হাজার ১৮৮ জন ছাত্রী এবার রাজশাহী বোর্ড থেকে জিপিএ-৫ পেয়েছে।

রাজশাহী শিক্ষাবোর্ডে এবারের এইচএসসি পরীক্ষায় পাসের হার ৭৬ দশমিক ৩৮ শতাংশ। জিপিএ-৫ পেয়েছে ৬ হাজার ৭২৯ শিক্ষার্থী। পাসের হার ও জিপিএ-৫ প্রাপ্তির দিক দিয়ে গতবারের চেয়ে বেড়েছে। গত বছর এ বোর্ডে পাসের হার ছিল ৬৬ দশমিক ৫১ শতাংশ। জিপিএ-৫ পেয়েছিল ৪ হাজার ১৩৮ শিক্ষার্থী।

রাজশাহী শিক্ষাবোর্ডের ৭৫৮টি কলেজের মধ্যে এবার শতভাগ পাস করেছে ৩৪টি কলেজের শিক্ষার্থীরা। সাতটি কলেজ থেকে কেউ পাস করতে পারেনি।

গত বছর রাজশাহীতে পাসের হার ছিল ৬৬ দশমিক ৫১ শতাংশ। ২০১৭ সালে ৭১ দশমিক ৩০, ২০১৬ সালে ৭৫ দশমিক ৪০, ২০১৫ সালে ৭৭ দশমিক ৫৪, ২০১৪ সালে ৭৮ দশমিক ৫৫, এবং ২০১৩ সালে ৭৭ দশমিক ৬৯ শতাংশ।

বুধবার দুপুরে রাজশাহী শিক্ষাবোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক আনারুল হক প্রামাণিক সংবাদ সম্মেলন করে এসব তথ্য জানান।।

তিনি বলেন, বোর্ডে এবার মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ছিল ১ লাখ ৫১ হাজার ১৩৪ জন। উপস্থিত পরীক্ষার্থী ছিল ১ লাখ ৪৮ হাজার ৬৭২ জন। বিগত বছরের তুলনায় এবার সর্বোচ্চ সংখ্যক শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নেয়। এদের মধ্যে এক লাখ ১৩ হাজার ৫৫০ জন শিক্ষার্থী পাস করেছে।

বরাবরের মতো এবারও পাসের হারে এগিয়ে মেয়েরা। তবে জিপিএ-৫ পাওয়ায় বরাবরের মতো এগিয়ে ছেলেরা।
গতবারের তুলনা এবার কমেছে অকৃতকার্যের সংখ্যা। ২৬ হাজার ৮২৮ জন শিক্ষার্থী এবার এক বিষয়ে ফেল করেছে। মোট পরীক্ষার্থীর মধ্যে এর হার ১৮ দশমিক ০৫ শতাংশ। গত বছর ফেল করেছিলো ৩৫ হাজার ৩৭ জন পরীক্ষার্থী।

এ বছর ২২ জন দৃষ্টি প্রতিবন্দ্বী পরীক্ষায় অংশ নেয়। এর মধ্যে নিয়ে ১৮ জন সাফল্যর সঙ্গে পাশ করেছে। এদের মধ্যে একজন জিপিএ-৫ পেয়েছে। শারীরিক প্রতিবন্দ্বী পরীক্ষার্থী ছিলো ১৯জন। এর মধ্যে পাস করেছে ১২জন। জিপিএ-৫ পেয়েছে একজন। কারাবন্দ্বী অবস্থায় চারজন পরীক্ষা দিয়ে পাস করেছে একজন।

আস/এসআইসু

Facebook Comments