সহিংসতা বন্ধে বিশেষ ট্রাইব্যুনাল গঠনের দাবি, প্রধানমন্ত্রীকে কঠোর হওয়ার আহ্বান

340

রাজশাহী প্রতিনিধি

“আর কোনো বর্বরতা না, চাই সামাজিক নিরাপত্তা, নিরাপদ সড়ক” স্লোগানকে সামনে রেখে সাম্প্রতিক সময়ে দেশব্যাপী চলমান বর্বরোচিত হত্যাকা-, ধর্ষণ ও হত্যাচেষ্টা বন্ধ এবং সড়কে যানচলাচলে অব্যবস্থাপনার নির্মমবলী রাজশাহী কলেজ ছাত্রের হাত হারানো ঘটনার প্রতিবাদে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে স্বাধীনতার স্বপক্ষের অরাজনৈতিক সামাজিক সংগঠন ‘বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশ চাই’।

সোমবার বেলা ১১টায় নগরীর সাহেববাজার জিরোপয়েন্ট (প্রেসক্লাব চত্বর) এলাকায় বরগুনায় স্ত্রীর সামনে স্বামী রিফাত শরীফকে কুপিয়ে হত্যা, সাতক্ষীরায় কিশোর শাহীনকে কুপিয়ে ভ্যান ছিনতাই, নারায়ণগঞ্জে শিক্ষক কর্তৃক ২০ জনের অধিক ছাত্রী ধর্ষণ, বন্দর এলাকায় স্ত্রীর সামনে স্বামীকে ও সোনারগাঁওয়ে সন্তানের সামনে বাবাকে হত্যাচেষ্টা, সড়ক দুর্ঘটনায় রাজশাহীতে কলেজ ছাত্র ফিরোজ সরদারের হাত বিচ্ছিন্নের মতো বর্বরোচিত ঘটনার প্রতিবাদ এবং বিশেষ ট্রাইব্যুনাল গঠনের মাধ্যমে বিচার নিশ্চিত করার দাবিতে এই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

এ সময় বক্তারা বলেন, প্রধানমন্ত্রীর চোখে পড়লে কিংবা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হলে কেবল সেটি গর্হিত অপরাধ বলে গণ্য হবে। তড়িৎগতির কারণে অপরাধী গ্রেপ্তার হবে। সুবিচার নিশ্চত করা যাবে। এই সংস্কৃতি থেকে বেরিয়ে আসা দরকার। সমাজে এরূপ মানবতা বিধ্বংসী বর্বর নৃশংস অপরাধ দেশের যেই প্রান্তে ঘটুক না কেন তা বন্ধে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর পৃথক টিমকে তৎপর থাকতে হবে। অপরাধীরা যেন বিচার চাওয়ার বিলম্ব প্রক্রিয়ার ফাঁক গলিয়ে পালিয়ে যেতে না পারে বিষয়টি নিশ্চিত করতে হবে।

এটি সম্ভব হলে নুসরাত থেকে নারায়ণগঞ্জে শিক্ষক কর্তৃক সিরিজ ধর্ষণ কিংবা বরগুনার রিফাত শরীফ থেকে যশোরের কিশোর ভ্যানচালক শাহীনকে রক্তাক্ত হতে হবে না। বর্বরোচিত হত্যাকা–অপরাধ প্রবণতার পেছনের বড় একটি কারণ মাদক। বক্তরা দুঃখ প্রকাশ করে বলেন, ইয়াবার রুট হিসেবে পরিচিত টেকনাফ/কক্সবাজার অঞ্চলে মাদকের গডফাদারদের ধরতে কিংবা সিন্ডিকেট ভাঙ্গতে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী কিছুটা হলেও সফল হয়েছে। কিন্তু অজানা কারণে হেরোইন-ইয়াবার দ্বিতীয় বৃহত্তম রুট রাজশাহীর গোদাগাড়ী এলাকার গডফাদাররা আজও ধরাছোঁয়ার বাইরে। এজন্য প্রধানমন্ত্রীকে সোচ্চার ও কঠোর হওয়ার আহ্বান জানানো হয়।

বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশ চাই’র আহ্বায়ক আসলাম-উদ-দৌলার সভাপতিত্বে মানববন্ধন কর্মসূচিতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- মহানগর আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা কলামিস্ট মুক্তিযোদ্ধা প্রশান্ত কুমার সাহা এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখন- রাজশাহী প্রেসক্লাব সভাপতি সাইদুর রহমান। স্বাগত বক্তব্য রাখেন- বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশ চাই’র সদস্য রাজশাহী কলেজ ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ববিন খান।

আলোচনা রাখেন- মহানগর সেক্টর কমান্ডার ফোরাম সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা শাহজাহান আলী বরজাহান, জননেতা আতাউর রহমান স্মৃতি পরিষদ সহ-সভাপতি ও জাতীয় পার্টি মহানগর শাখার সিনিয়র যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক সালাউদ্দিন মিন্টু, সাস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব মনোয়ারুল ইসলাম বকুল, রাজশাহী প্রেসক্লাবের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক নূরে ইসলাম মিলন, বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশ চাই সদস্য কাজী রকিবউদ্দিন, বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশ চাই সদস্য ও মহানগর রিক্সা-ভ্যান চালক শ্রমিক ইউনিয়ন সাধারণ সম্পাদক মাসুদুজ্জামান কাজল, বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশ চাই সদস্য কাজী হান্নান তংকু, জেলা তাতীঁ লীগের যুগ্ম-আহ্বায়ক আসাদুল হক দুখু, মাহানগর পূজা উদযাপন কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক মৃদুল সাহা, মহানগর ফুটাপাত ব্যবসায়ী সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক মানবাধিকার কর্মী আইয়ুব আলী তালুকদার, বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশ চাই সদস্য তাসকিন পারভেজ শাতীল, রাগীব হাসান রাফেল, শাহিদুর রহমান সোনা, নাজমুল কবির নয়ন, রাকিবুল আলম জয় প্রমুখ।

আস/এসআইসু

Facebook Comments