স্বামীর অনৈতিক সম্পর্ক, গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু

344

আলোকিত সকাল ডেস্ক

ঢাকার নবাবগঞ্জ উপজেলার কৈলাইল ইউনিয়নের পাড়াগ্রামে চাঁদনী আক্তার (২১) নামে এক গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকাল ৪টা ৩০ মিনিটে নবাবগঞ্জ থানা পুলিশ চাঁদনীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করে।

ঘটনার পর থেকে মৃতের স্বামী রিমন (২৬) পলাতক। চাঁদনীর বাবার বাড়ি ব্রাহ্মণবাড়ীয়া জেলায়।

স্থানীয়দের দাবি, এক সন্তানের জননী চাঁদনী তার স্বামী রিমনের (২৬) সাথে বিভিন্ন নারীর অনৈতিক সম্পর্কের বিষয় জানতে পারায় দুজনের মধ্যে প্রায়ই ঝগড়া ফ্যাসাদ হতো। স্বামী ও শ্বশুরবাড়ির লোকজনদের অত্যাচার ও অবহেলা সইতে না পেরে তিনি আত্মহত্যা করতে পারেন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক প্রতিবেশী বলেন, ফেসবুকে রিমনের সাথে পরিচয় হয় ব্রাহ্মণবাড়ীয়ার মেয়ে চাঁদনীর। সেই সূত্র ধরে বিয়ের আসর থেকে চাঁদনী পালিয়ে আসে। পরে ঢাকায় তাদের বিয়ে হয়।

৬ মাস আগে রিপন এক প্রবাসীর স্ত্রীর সাথে অনৈতিক সর্ম্পক গড়ে তোলেন। বিষয়টি এলাকাবাসী জানতে পারায় কিছু দিন আগে ওই নারীকে নিয়ে পালিয়ে যান। পরে স্থানীয় কিছু ব্যক্তির সহযোগিতায় রিমন এলাকায় ফিরে আসেন। তারপর থেকে রিমনের সাথে তার স্ত্রীর বনিবনা হচ্ছিলো না। প্রায়ই স্ত্রীকে মারধর করতেন তিনি।

এ বিষয়ে নবাবগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) সুজন বিশ্বাস বলেন, আমরা গৃহবধূ চাঁদনীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসি। ময়না তদন্তের রিপোর্ট পাওয়ার পর জানা যাবে কিভাবে তার মৃত্যু হয়েছে। সুরতহাল রিপোর্ট শেষে লাশ ময়না তদন্তের জন্য ঢাকায় পাঠানো হবে। মৃতের স্বামী রিপনকে খুঁজে পাওয়া যায়নি।

আস/এসআইসু

Facebook Comments