পুলিশ নিজের জীবন বাঁচাতে নয়ন বন্ডকে গুলি করেছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

417

আলোকিত সকাল ডেস্ক

বরগুনায় স্ত্রীর সামনে প্রকাশ্যে রিফাত শরীফকে কুপিয়ে হত্যা মামলার প্রধান আসামি নয়ন বন্ড পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে নিহত হয়েছেন। এ প্রসঙ্গে প্রতিক্রিয়া স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেছেন, নিশ্চয়ই সে (নয়ন) অস্ত্র দেখিয়েছিল, গুলি বা নিজেকে আড়াল করার জন্য সে প্রচেষ্টা করেছিল। সে জন্য পুলিশ নিজের নিরাপত্তায় জীবন বাঁচানোর জন্য হয়তো এটি করেছে।

মঙ্গলবার (০২ জুলাই) দুপুরে রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে সম্প্রীতি বাংলাদেশ আয়োজিত এক অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, রিফাতের হত্যাকারীদের আমরা খুঁজছিলাম। আমাদের পুলিশ ও নিরাপত্তা বাহিনী, আমাদের গোয়েন্দা বাহিনী তার (নয়ন) পিছু নিয়ে সর্বক্ষণ প্রচেষ্টা করছিল তাকে ধরার জন্য। কিন্তু ধরার শেষ মুহূর্তে নয়ন শুধু পালিয়ে বেড়াচ্ছিল। আমি যতটুকু শুনেছি, সে অবস্থান চেঞ্জ করছিল। তবে শেষ পর্যন্ত তাকে কেন গুলিবিনিময় করতে হয়েছিল সেটি না জেনে কিছু বলতে পারবেন না বলে জানান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

তিনি বলেন, তবে আমি যতটুক জানি, নিশ্চয়ই সে (নয়ন) অস্ত্র দেখিয়েছিল, গুলি বা নিজেকে আড়াল করার জন্য সে প্রচেষ্টা করেছিল। সে জন্য পুলিশ নিজের নিরাপত্তায় জীবন বাঁচানোর জন্য হয়তো এটি করেছে। এ বিষয়ে আমাকে আরও জানতে হবে।

তিনি আরও বলেন, নয়নবন্ড বন্দুকযুদ্ধে নিহত হলেও বাকীদের জীবিত অবস্থায় ধরা হয়েছে। আমরা ইনকোয়ারি করার পর এ ঘটনায় আরও কারা জড়িত ছিল সবই আপনারা জানতে পারবেন। এ ঘটনায় প্রভাবশালী কেউ জড়িত থাকলে নিশ্চয়ই তাকেও বের করব। আমাদের প্রধানমন্ত্রী সুশাসন প্রতিষ্ঠার জন্য যা যা করা দরকার সবই করছেন। এর জন্য কোনো প্রভাবশালী, কোনো জনপ্রতিনিধি বা কোনো নেতা আমাদের কাছে অন্তরায় নয়। যে অন্যায় করবে সে আইনের মুখোমুখি হবে।

প্রসঙ্গত বরগুনায় প্রকাশ্য সড়কে স্ত্রীর সামনে রিফাত শরীফকে নৃশংসভাবে কুপিয়ে হত্যার অন্যতম প্রধান আসামি সাব্বির হোসেন নয়ন ওরফে নয়ন বন্ড মঙ্গলবার ভোরে পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত হন। ঘটনাস্থল থেকে একটি পিস্তল, এক রাউন্ড গুলি, দুটি শটগানের গুলির খোসা এবং তিনটি দেশীয় ধারালো অস্ত্র উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় এএসপি শাজাহানসহ চার পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন।

আস/এসআইসু

Facebook Comments